করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে নেত্রকোনার খালিয়াজুরীর লক্ষীপুর গ্রামটিকে লকডাউন ঘোষনা

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে নেত্রকোনার খালিয়াজুরীর লক্ষীপুর গ্রামটিকে লকডাউন ঘোষনা

এ কে এম আব্দুল্লাহ্, নেত্রকোনা : করোনা সংক্রমন ঠেকাতে নেত্রকোনা জেলার খালিয়াজুরী উপজেলার লক্ষীপুর গ্রামটিকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত লকডাউন ঘোষনা করেছে স্থানীয় উপজেলা প্রশাসন।
      সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, রাজধানী ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জে করোনা ভাইরাসে বেশ কয়েকজন মৃত্যুবরণ করায় স্থানীয় প্রশাসন ঢাকা ও নারায়নগঞ্জকে লকডাউন ঘোষনা করে। লকডাউনের নিয়ম ভেঙে নারায়নগঞ্জ থেকে অর্ধশতাধিক লোক পালিয়ে মঙ্গলবার রাত ৩টার দিকে তাদের গ্রামের বাড়ী নেত্রকোনা জেলার খালিয়াজুরী সদরের লক্ষীপুর গ্রামে চলে আসে। তারা হোম কোয়ারেন্টাইন না মেনে গ্রামের এ বাড়ী সে বাড়ী ও স্থানীয় হাট বাজারে ঘুরাফেরা করছে এ ধরনের সংবাদের ভিত্তিতে খালিয়াজুরী উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ এইচ এম আরিফুল ইসলাম বৃহস্পতিবার দুপুরে মাইকিং করে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত লক্ষীপুর গ্রামটিকে অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য লকডাউন ঘোষনা করেন।  
    খালিয়াজুরী উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ এইচ এম আরিফুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, করোনা ভাইরাস সংক্রমিত নারায়ণগঞ্জ থেকে অর্ধশতাধিক শ্রমিক গত মঙ্গলবার রাত ৩টার দিকে সেখান থেকে পালিয়ে লক্ষীপুর গ্রামে চলে এসেছে। তারা হোম কোয়ারেন্টাইন না মেনে স্থানীয় বাজারসহ এলাকায় অবাধে ঘুরাফেরা করছে। তাদের মাঝে যদি কারো শরীরে করোনা ভাইরাস থেকে থাকে, তা যেন ঘোটা হাওরাঞ্চল এলাকায় ছড়িয়ে পড়তে না পারে তার জন্যই জেলা প্রশাসনের নির্দেশে লক্ষীপুর গ্রামটিকে অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। এখন থেকে এ গ্রামটিকে নিয়মিত পুলিশী প্রহরায় রাখা হবে। বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া কেউ যেন গ্রামে ঢুকতে অথবা বের হতে না পারে।