কেন্দুয়ায় বোরো ধান কাটা শ্রমিকের তীব্র সংকট

কেন্দুয়ায় বোরো ধান কাটা শ্রমিকের তীব্র সংকট

সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা, কেন্দুয়া  প্রতিনিধি ঃ  নেত্রকোণার কেন্দুয়ায় এবার বোরো ধান কাটা শ্রমিকের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে।  ফলে কৃষকরা পাকা ধান কেটে কিভাবে ঘরে তুলবেন এ নিয়ে পড়েছেন দুঃশ্চিন্তায়। কেন্দুয়া উপজেলায় ২১ হাজার হেক্টর জমিতে বিভিন্ন জাতের বোরো ধানের আবাদ করা হয়েছে। ব্রি ২৮ জাতের ধান কাটা শুরু হলেও ব্রি ২৯ জাতের ধান কাটা কয়েক দিনের মধ্যেই শুরু হবে। কিন্তু এলাকার শ্রমিকরা ছাড়া উজান থেকে যেসব শ্রমিকরা ধান কাটার জন্য আগে থেকেই বোরো ধান কাটা এলাকায় আসতেন তারা এবার করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে লকডাউন ঘোষনা করায় ধান কাটতে আসতে পারছেন না। এতে ধান কাটা নিয়ে খুব দুঃশ্চিন্তায় আছেন কেন্দুয়া উপজেলার অন্তত শতাধিক গ্রামের কৃষক। ঐতিহাসিক জালিয়ার হাওরের পশ্চিম তীরে বড়তলা, মোজাফরপুর, চারিতলা, গগডা, গোপালাশ্রম, হারুলিয়া, মামুদপুর, চৌকিধরা, তেতুলিয়া, বিষ্ণুপুর, জালালপুর, পালড়া, রাঘবপুর সহ অন্যান্য গ্রামের কৃষকরা খুবই দুঃশ্চিন্তায় আছেন ধান কাটা নিয়ে। বৈশাখ মাসে এক দিকে যেমন, কাল বৈশাখীর ছোবলে  ক্ষতি গ্রস্থ করে ফসলের মাঠ, অপর দিকে আগাম বন্যা ও শিলা বৃষ্টিতে পাকা ধান শীষ থেকে পরে গিয়ে তলিয়ে যায়। তাই সময়মত ধান কেটে ঘরে তুলতে না পাড়লে সারা বছরেই ভাতের জন্য কষ্ট করতে হয় কৃষকদের। মামুদপুর গ্রামের কৃষক মোঃ দিদারুল ইসলাম জানান, এই জালিয়ার হাওরের পশ্চিম অংশে যে সব বোরো জমি আবাদ করা হয়েছে, তা কেটে ঘরে তোলার জন্য এখনই শ্রমিক সংকট দেখা দিচ্ছে। এই সংকট দূর করতে না পারলে কৃষকরা ভিষন বেকায়দায় পড়বেন। তাছাড়া ধান কাটাই মাড়াই ঝাড়াইয়ের মেশিন নেই বললেই চলে। কেন্দুয়া উপজেলায় মাত্র দুটি মেশিন ভর্তুকি মূল্যে বিতরন করা হয়েছে। তাও সে মেশিনগুলো এখন খালিয়াজুড়ি, মোহনগঞ্জ হাওড়ে। বোরো ধান কেটে সময়মত ঘরে তুলতে ধান কাটাই মাড়াই ঝাড়াই হারবেস্টার মেশিন অন্তত আরো ৫/৬ টি দরকার কেন্দুয়া এলাকায়। এ বিষয়ে তিনি কৃষি বিভাগের মাধ্যমে মেশিন সরবরাহের জন্য সরকারের নিকট জোর দাবী জানান। বড়তলা গ্রামের আব্দুল খালেক ভ‚ঞা জানান, ধান কাটার শ্রমিকের সংকটের কারণে আমাদের অসুবিধায় পড়তে হবে। শ্রমিক সংকট সমাধান না হলে ঠিকমত ধান কেটে ঘরে তোলা যাবেনা। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনিসুজ্জামান জানান, দুটি হারবেস্টার ইতিমধ্যে ভর্তুকি মূল্যে বিতরণ করা হয়েছে। কৃষি ও কৃষকের কল্যানে আগামী দিনগুলোতে কৃষি বন্ধব সরকার পর্যায়ক্রমে সময়মত ধান কাটাই মাড়াই ঝাড়াই ও প্যাকেটিং করার জন্য অবশ্যই মেশিন সরবরাহ করবেন।