দুর্গাপুরে জোরপূর্বক জমি দখল করে স্থাপনা নির্মাণ

দুর্গাপুরে জোরপূর্বক জমি দখল করে স্থাপনা নির্মাণ

দুর্গাপুর ,প্রতিনিধি: নেত্রকোনার দুর্গাপুর সদর ইউনিয়নের মেনকিফান্দা গ্রামে এক কৃষকের জমি দখল করে প্রতিপক্ষের ঘর নির্মাণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ অনিয়মের প্রতিকার চেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট স্থানীয় চৌষট্টি জনের গণসাক্ষরযুক্ত লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন এক ভুক্তভোগী।

    এ নিয়ে বুধবার সরেজমিনে পর্যবেক্ষন ও লিখিত অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, দুর্গাপুর ইউনিয়নের মেনকিফান্দা গ্রামের মৃত. জুবেদ আলীর ছেলে গিয়াস উদ্দিনের মেনকিফান্দা মৌজায় ৫৯ শতাংশ জমি রয়েছে। একই গ্রামের মৃত জামাল উদ্দিনের পুত্র মোঃ আলতাব হোসেন তার সঙ্গীয় অপরিচিত ৪-৫জন লোক নিয়ে ওই জমি জোর করে দখল নিয়ে টিন দিয়ে একটি চালা ঘর নির্মাণ করে। পয়তাল্লিশ বছর ধরে স্বত্ব দখলীয় মো. গিয়াস উদ্দিনের ভূমিতে স্থায়ীভাবে ঘর নির্মাণের পায়তারা চালিয়ে আসছে মোঃ আলতাব হোসেন। ওই ঘর নির্মাণে বাঁধা দিতে গেলে তার স্ত্রীকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করণ সহ মারপিট করতে উদ্যত হয়। এ বিষয়টি নিয়ে মামলা মোকাদ্দমা করলে প্রকাশ্যে প্রাণনাশের হুমকী দিয়ে বেড়াচ্ছে ওই মহলটি।

    এ নিয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়াম্যান শাহিনুর আলম সাজু বলেন, জমি বিরোধের বিষয়টি মিমাংসার জন্য গ্রাম্য সালিশে বেশ কয়েকবার বসা হয়েছে। তবে দুই ভাইয়ের ব্যাপার, কেউ কাউকে ছাড় দিতে রাজি নয় বিধায় ঝামেলা থেকেই যাচ্ছে। গ্রাম্য এক শালিসের মাধ্যমে ইউএনও স্যারের পরামর্শে ওই জমি দুই ভাইয়ের মাঝে অর্ধেক অর্ধেক করে ভোগ দখলের সিদ্ধান্ত দেওয়ার পরেও মোঃ আলতাব হোসেন তা না মেনে জমিতে ঘর নির্মান করে রেখেছে।

    এ বিষয়ে ইউএনও ফারজানা খানম বলেন, একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগটি তদন্ত চলছে। নিজেদের মাঝে ঝামেলা এড়াতে জমি সংক্রান্ত বিষয়টি নিস্পত্তির জন্য উভয় পক্ষকে ডাকা হলেও একটি পক্ষ বিষয়টি অনিহা করে যাচ্ছে।