নেত্রকোনার পূর্বধলায় দুর্বৃত্তদের হামলায় আহত যুবকের চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু

নেত্রকোনার পূর্বধলায় দুর্বৃত্তদের হামলায় আহত যুবকের চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু

 নেএকোনা প্রতিনিধি:

বাড়িতে ফেরার পথে দুর্বৃত্তদের হামলায় গুরুতর আহত রুকনুজ্জামান খান মিন্টু (৪০) মৃত্যুর সাথে দীর্ঘ ৫৬ ঘন্টা পাঞ্জা লড়ে অবশেষে সোমবার দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছে। ময়না তদন্ত শেষে সন্ধ্যায় মরদেহ নিহতের বাড়িতে আনা হয়েছে।
     নিহত মিন্টু নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা উপজেলার আগিয়া ইউনিয়নের বালিয়া গ্রামের আব্দুর কাদির খানের ছেলে।
  স্থানীয় এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রুকনুজ্জামান খান মিন্টু গত শুক্রবার দিনগত রাত আনুমানিক দুইটার দিকে বাড়িতে ফেরার পথে উপজেলার সাত্তাটি বাঁশ ঝাড়তলা নামক এলাকায় আসলে দুর্বৃত্তরা তার পথরোধ করে দেশিয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলাপাতাড়ি কুপিয়ে মারাত্মক আহত করে। এ সময় তার ডাক-চিৎকারে আশপাশের বাড়ীর লোকজন এগিয়ে আসলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে পূর্বধলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। তার অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। 
নিহতের চাচাতো ভাই সিরাজুল ইসলাম খান জানান, সোমবার দুইটার দিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মিন্টু মারা যায়। পরবর্তীতে ময়না তদন্ত শেষে তার মৃতদেহটি সন্ধ্যায় বাড়িতে আনা হয়।
     এ ব্যাপারে নেত্রকোনা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোর্শেদা খাতুন দুর্বৃত্তের হামলায় মিন্টু গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে মারা যাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পরিবারের লোকজন লাশ দাফন নিয়ে ব্যস্ত রয়েছে। লাশ দাফনের পর ধীরে সুস্থে মামলা দায়েরের কথা জানিয়েছেন।