কলমাকান্দায় কৃষি অফিসে জনবল সংকট, সেবা ব্যহৃত

 কলমাকান্দায় কৃষি অফিসে জনবল সংকট, সেবা ব্যহৃত

শেখ শামীম, স্টাফ রিপোর্টার : নেত্রকোণার কলমাকান্দায় উপজেলা কৃষি অফিসে জনবল সংকট থাকায় দীর্ঘদিন ধরে সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন কৃষকরা। উপজেলা কৃষি অফিসে জনবল সংকটের বিষয়ে একাধিকবার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবহিত করা হলেও দৃশ্যমান কোন উদ্যোগ নেয়নি বলে জানা গেছে ।

স্থানীয় ও কৃষি অফিস সুত্রে  জানা গেছে, জেলার কৃষি প্রধান উপজেলা কলমাকান্দা । এ উপজেলায় আবাদি জমি হচ্ছে ৩১ হাজার ২৬৯ হেক্টর। কৃষি পরিবারের সংখ্যা ৪৫ হাজার ১৬০ জন।  উপজেলার ৮ টি ইউনিয়নে কৃষি সেবা নিশ্চিত করার লক্ষে ২৪টি বøক রয়েছে। এ উপজেলা কৃষি অফিসার, অতিরিক্ত  উপজেলা কৃষি অফিসার,উপজেলা কৃষি স¤প্রসারণ অফিসার, সহকারী কৃষি স¤প্রসারণ অফিসার, উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা ২৪জনসহ ৪০ জন কর্মরত থাকার কথা কিন্তু তার বিপরীতে ১৬ জন কর্মরত আছেন। এ উপজেলায় কৃষিতে সমৃদ্ধ হওয়া সত্তে¡ও  জনবল সংকট থাকার কারণে প্রাপ্য সেবা থেকে বঞ্চিত হওয়ায় দিন দিন কৃষি কাজের প্রতি আগ্রহ হারাচ্ছেন কৃষকরা। কৃষি অফিসার ও মাঠ কর্মীদের সহযোগিতা না পেয়ে ফসলের সঠিক পরিচর্যা করতে পারছেন না। এতে চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে ।

উপজেলার সদর ইউনিয়নের চান্দুয়াইল গ্রামের কৃষক রজব আলী জানান, আমাদের ইউনিয়নের ওয়ার্ডে  দায়িত্বে থাকা কোন মাঠ কর্মী আসেননি। এমনকি অফিসে গিয়েও উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের পাওয়া যায় না। তবে শুনেছি তাদের জনবল সংকট রয়েছে।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায় , কলমাকান্দা উপজেলা কৃষি অফিসের অধীনে দীর্ঘদিন যাবৎ যে সমস্ত পদ শূন্য রয়েছে তা হলো -  উপজেলা অতিরিক্ত কৃষি অফিসার একজন, উপজেলা কৃষি স¤প্রসারণ অফিসার দুইজন, সহকারী কৃষি
স¤প্রসারণ অফিসার একজন, উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা ১৫ জন, উচ্চমান সহকারী তথা হিসাব রক্ষক একজন, পি পি এম দুইজন, স্প্রেয়ার মেকানিক একজন, নিরাপত্তা প্রহরী একজনসহ ২৪ টি পদ শূন্য রয়েছে। এর মধ্যে উপজেলায়  উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা কর্মরত ৯ জনের মধ্যে মো. ফরিদ হোসেন প্রেষণে গাজীপুর মৌচাকের হর্টিকালচার সেন্টারে  কর্মরত আছেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ ফারুক আহমেদ সত্যতা নিশ্চিত করে  তিনি ইক্রা প্রতিদিনিকে বলেন, জনবল সংকট থাকার কারণে কাজ করতে খুবই হিমশিম খেতে হচ্ছে । আরো কিছু লোকবল পেলে কাজের গতি আরো বৃদ্ধি পাবে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট প্রতি মাসেই শূন্য পদের প্রতিবেদন পাঠানো হয়।

এবিষয়ে গত বৃহস্পতিবার বিকালে  নেত্রকোণার কৃষি স¤প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. হাবিবুর রহমানের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে কলমাকান্দা উপজেলা কৃষি অফিসে শূন্য পদের কারণে কৃষি সেবা ব্যহৃত হচ্ছে সত্যতা নিশ্চিত করে তিনি ইক্রা প্রতিদিনিকে বলেন , শূন্য পদ পূরণ করার আমার কোন এখতিয়ার নেই। তবে ইতিমধ্যেই আমরা শূন্য পদের তালিকা তৈরি করে জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতেধ উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট পাঠিয়ে দিয়েছি। তারা যদি পদায়ন করেন তাহলে আমরা পদায়ন করতে পারবো। তা না হলে সম্ভব হবে না।