মদনে ইয়াবা ব্যবসায়ীর হামলায় মুক্তিযোদ্ধান সন্তান আহত

 মদনে ইয়াবা ব্যবসায়ীর হামলায় মুক্তিযোদ্ধান সন্তান আহত

মদন(নেত্রকোনা)প্রতিনিধি ঃ নেত্রকোনার মদনে ইয়াবা ব্যবসায়ী ফতেপুর গ্রামের মোখলেছ চৌধুরীর ছেলে বাবু দেড় মাস পর জেল থেকে বের হয়েই মুক্তিযোদ্ধা সন্তান আবুল বাশার ইয়ারখানকে পিটিয়ে জখম করার এক অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার বিকালে উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের ফতেপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পূর্বপাশে এ ঘটনা ঘটে। আহত আবুল বাশার মদন হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।
আহত তিয়শ্রী ইউনিয়নের সাইতপুর গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা মৃত আব্দুল করিমের ছেলে আবুল বাশার  ইয়ারখান জানান,ফতেপুর পশ্চিমপাড়া আমার মেয়ের শ্বশুর বাড়ি থেকে রোববার বিকালে নিজ বাড়িতে ফেরার পথে ফতেপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পূর্বপাশে পৌঁছলে মোখলেছ চৌধুরীর ছেলে  ইয়াবা ব্যবসায়ী বাবু ও শিমুল,একই গ্রামের জামানের ছেলে সীমান্ত,শফি চৌধুরীর ছেলে বাবুসহ ৮/১০ জন রড, লাটি সোঠা নিয়ে আমার উপর অর্তকিত হামলা চালায়। হামলাকারীরা হুমকি দিয়ে বলে, এর আগে ডিবি দিয়ে আমাকে গ্রেফতার করেছিলে এখন এসেছিস আবার আমাদেরকে ডিবি পুলিশ দিয়ে গ্রেফতার করতে ? তোর আর রক্ষা নেই বলে আমাকে এলোপাতারিভাবে পিটিয়ে জখম করে।

আমার ডাক চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা জামাই বাড়ি থেকে আনা পকেটে রাখা দেড় লাখ টাকা চিনিয়ে নিয়ে যায়। হামলাকারীরা ইয়াবা ব্যবসায়ী ও কুখ্যাত সন্ত্রাসী। এদের বিরুদ্ধে মাদক ও সন্ত্রাসী মামলা রয়েছে। আমি এ ঘটনার ন্যায় বিচার চাই।

হামলাকারী শিমুল চৌধুরী জানান, ইয়ারখান আমার ছোটভাই নির্দোষ সজিদ চৌধুরী বাবুকে অহেতুক ডিবি পুলিশ দিয়ে গ্রেফতার করে মাদক মামলা দিয়ে জেল কাটিয়েছে। গতকাল রোববার আবারো ডিবি দিয়ে গ্রেফতার করার ফন্দি করলে তাকে মারপিট করা হয়।

সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম চৌধুরী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,এ ঘটনা খুবই দুঃখজনক। গত কয়েকদিন হল ইয়াবা মামলায়  হাজত থেকে বাবু এসেছে।  আমি চাই এদেরকে আইনের আওতার নিয়ে বিচার করা হোক।

এস আই শরিফ জানান,এ খবর পেয়ে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে দেখতে   হাসপাতালে যাই। তাদেরকে বলেছি লিখিত অভিযোগ করলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।