নান্দাইলের কৃতি সন্তানের মেডিকেল পরীক্ষায় ২য় স্থান অর্জন

নান্দাইলের কৃতি সন্তানের মেডিকেল পরীক্ষায় ২য় স্থান অর্জন

মিন্টু মিয়া, নান্দাইল: শাহজাহান ও পারভীন বেগম দম্পতির ৩ সন্তানের মধ্যে বড় ছেলে তানভীর আহমেদ। ২০২০ -২০২১ শিক্ষাবর্ষে মেডিকেল কলেজ এমবিবিএস পরীক্ষায় সারা দেশের ২য় স্থান অধিকার করেছে তানভীর। তার এই সাফল্যে আনন্দে ভাসছে নান্দাইল বাসী।

তানভীর আহমেদ নান্দাইল উপজেলার মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়নের তসরা গ্রামের শাহজানের সন্তান। শাহজাহান ঢাকা বিমান বাহিনীর সার্জেন্ট ছিলেন। ২০১৪ সালে অবসর নিয়ে সন্তানদের পড়াশোনা করানোর জন্য টাঙ্গাইল জেলার সফিপুর উপজেলার নলুয়া আড়লিপাড়া এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় বসবাস করছেন। সেখান থেকে ৩ সন্তানকে পড়াশোনায় নিজেদেকে ব্যস্থ রেখেছে এই দম্পতি।

তানভীর ছোটবেলা থেকেই অত্যন্ত মেধাবী ছাত্র ছিল, ঢাকা সিদ্দিক মেমোরিয়াল কিন্ডারগার্টেন থেকে ৫ম শ্রেণির সমাপনী পরীক্ষায় জিপিএ- ৫ অর্জন করেন। সফিপুর বিএএফ শাহীন কলেজ থেকে এসএসসি সমমানের পরীক্ষায় জিপিএ-৫ একই কলেজ থেকে এইচএসসি সমমানের পরীক্ষায় জিপিএ-৫ অর্জন করে সে।

তার এই মেধার ধারাবাহিকতা কেউ আটকাতে পারেনি। তানভীর আনন্দ মোহন কলেজ থেকে ভর্তি পরীক্ষা দিয়েছিল। মেডিকেল কলেজ এমবিবিএস পরীক্ষায় ১০০ নম্বরের মধ্যে ৮৭ নম্বর পেয়ে সারা দেশে ২য় স্থান অধিকার অর্জন করে।

তানভীর আহমেদ জানায়, "সারা দেশে ২য় হওয়াতে আমার অনেক পড়াশোনা করতে হয়েছে ঢাকা ও টাঙ্গাইল কোচিং করতে হয়েছে। আমি আরো পড়াশোনা করে দেশ সেরা হতে চাই। আমার বাবা হার্টের রোগী দীর্ঘদিন ধরে হার্টের সস্যায় ভুগছেন। আমি ডাক্তার হয়ে আমার বাবার চিকিৎসা করবো। ডাক্তার হয়ে মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখবো।"

শাহজাহান জানান, "ডাক্তারী একটি মহৎ পেশা,ছেলে ডাক্তার হয়ে মানুষের সেবা করবে সেটাই আমি চাই। সবার কাছে দোয়া চাই আমার ছেলে যেন নান্দাইল বাসীর সুনাম ধরে রাখতে পারে।"