রাতের আঁধারে কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দেন পূর্বধলা উপজেলা চেয়ারম্যান সুজন

রাতের আঁধারে কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দেন পূর্বধলা উপজেলা চেয়ারম্যান সুজন
রাতের আঁধারে কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দেন পূর্বধলা উপজেলা চেয়ারম্যান সুজন

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাতের আধারে  কৃষকের পাকা ধান কেটে দিচ্ছেন পূর্বধলা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান  জাহিদুল ইসলাম সুজন। প্রতি রাতেই তিনি কৃষকদের ধান কেটে  দেন। লোক দেখানোর জন্য নয়, প্রকৃতপক্ষে কৃষকের উপকারের জন্যই তিনি রাতের আঁধারে ধান কেটে নিজেই কৃষকের বাড়িতে পৌঁছে দেন।

 

এবছর কৃষকরা কম্বাইন হারভেস্টার, রিপার মেশিন দিয়ে ধান কেটে দ্রুত ঘরে তুলছেন। সেই সাথে কৃষকদের উৎসাহিত করতে ধান কাটায় কোমর বেধে মাঠে নেমেছেন পূর্বধলা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম সুজন সহ নেতা কর্মী ও শ্রমিকরা।

এদিকে রোববার (০২ মে) উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি বোরো মৌসুমে ২১ হাজার ৭শ’৭০ হেক্টর জমিতে বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল। এর মধ্যে ১৮ হাজার ৪শ’ হেক্টর জমিতে উচ্চ ফলনশীল (উফশী), ৩হাজার ৩শ’৭০ হেক্টর জমিতে হাইব্রিড জাতের বোরো ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল।

অন্যদিকে উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মো. শফিকুল ইসলাম জানান, ইতোমধ্যেই ৬হাজার ১শ’ হেক্টর জমিতে হাইব্রিড জাতের ও ১৫হাজার ৭শ’৩০ হেক্টর জমিতে উচ্চ ফলনশীল (উফশী) জাতের ধান আবাদের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয়েছে। এখন পর্যন্ত ৭০ হেক্টর জমিতে ধান রোপনের লক্ষমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে।

এবার বোরো মৌসুমে গত বছরের তুলনায় বেশি জমিতে বোরোধান চাষের লক্ষ মাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। উপজেলায় এ বছর পর্যাপ্ত সার আগে থেকেই মজুদ ছিল এবং কৃষকরা নায্য মুল্যে সার ক্রয় করতে পেরেছে। আবহাওয়া কৃষি উপযোগি ও সব সময় অনুকুলে ছিল। কৃষকরা সময়মতো সুষম সার প্রয়োগ করেছেন,বিভিন্ন নতুন জাতের বীজ প্রনোদনার আওতায় সম্প্রসারণ করা হয়েছিল।