কেন্দুয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় অটো চালক খুন ! একজন আটক

কেন্দুয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় অটো চালক খুন ! একজন আটক

সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা, কেন্দুয়া প্রতিনিধি : তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে বৃহস্পতিবার বিকেলে অটো চালক ইমরান হোসেন বাবু (২৪) নামের এক যুবক খুন হয়েছে। এসময় আহত হয়েছে এখলাস উদ্দিন (৩০)। আশংকা জনক অবস্থায় এখলাস উদ্দিনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত অটো চালক ইমরান কেন্দুয়া উপজেলার সান্দিকোনা ইউনিয়নের চেংজানা গ্রামের শামিম মিয়ার ছেলে। 
    বৃহস্পতিবার বিকালের দিকে উপজেলার সান্দিকোনা ইউনিয়নের সাহিতপুর বাজারের রাস্তায় অটো রিকসা ও বাইসাইকেল চালকদের মধ্যে সাইড দেয়াকে কেন্দ্র করে চেংজানা গ্রামের দুই অটো চালক ও আটি গ্রামের বাইসাইকেল চালক যুবকদের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ঝগড়া বাঁধে। 
    বিষয়টি বাজারের স্থানীয় লোকজন মিমাংসা করে দিলেও আটি গ্রামের যুবকরা বাড়িতে ফিরে গিয়ে কিছুক্ষনের মধ্যে আরো কয়েকজনকে নিয়ে এসে চেংজানা গ্রামের অটো চালক ইমরান হোসেন বাবু ও এখলাছ উদ্দিনের উপর অতর্কিতে হামলা চালায়। এতে চেংজানা গ্রামের শামিমের ছেলে ইমরান ও গিয়াস উদ্দিনের ছেলে এখলাছ উদ্দিনকে আশংকা জনক অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ইমরান হোসেন বাবুকে মৃত বলে ঘোষনা করে। এদিকে এখলাস উদ্দিন আশংকা জনক অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ইমরারের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে গ্রামবাসীর মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা দেখা দিলে পুলিশ দ্রæত ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি সামলে দেন। কেন্দুয়া থানার ওসি কাজী শাহ নেওয়াজ জানান, অটো চালক ইমরান হোসেন বাবু খুনের ঘটনায় এখনও কোন মামলা হয়নি। অভিযোগ পেলেই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। তবে সন্দেহ জনক ভাবে আটি গ্রামের রুকন মিয়ার ছেলে সুমনকে আটক করে শুক্রবার নেত্রকোণা আদালতে পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি শান্ত রাখতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।