প্রেমিকের চলন্ত মোটরসাইকেল থেকে  পরে গিয়ে প্রেমিকার মর্মান্তিক মৃত্যু

প্রেমিকের চলন্ত মোটরসাইকেল থেকে  পরে গিয়ে প্রেমিকার মর্মান্তিক মৃত্যু


  কেন্দুয়া প্রতিনিধি  প্রেমিক জুবাইদের চলন্ত মোটর সাইকেল থেকে পরে গিয়ে প্রেমিকা জেসমিন আক্তারের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার সন্ধ্যা রাতে কেন্দুয়া আঠারোবাড়ি সড়কের সলফ কমলপুর ব্রীজ এলাকায়। পুলিশ মঙ্গলবার দুপুরে জেসমিনের লাশ ময়না তদন্তের জন্য নেত্রকোণা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। 
    পুলিশ সূত্রে জানাযায়, ভৈরব উপজেলার মানিকদি গ্রামের কাজল মিয়ার কন্যার বিয়ে হয়েছিল একই এলাকায় মাহফুজের সাথে। দেড় বছর আগে জেসমিনের স্বামী মাহফুজ মারা যান। এরই মধ্যে চার সন্তানের মা জেসমিন আক্তারের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে ওঠে ভৈরব উপজেলার কৃষ্ণ নগর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে জুবাইদের। সোমবার দুপুরের পর নিজ এলাকা থেকে জুবাইদ তার প্রেমিকা জেসমিনকে নিয়ে মোটর সাইকেল যোগে কেন্দুয়া হয়ে সুনামগঞ্জ বেড়াতে যাওয়ার জন্য রওয়ানা করে। দ্রæতগতিতে মোটর সাইকেল চালানোর ফলে সন্ধ্যা রাতে কেন্দুয়া আঠারোবাড়ি সড়কের সলফ কমলপুর এলাকায় ব্রীজ পার হওয়ার সময় জেসমিন মোটর সাইকেলের পেছন থেকে ছিটকে পরে যান। দ্রæত ঘটনা¯’ল থেকে পথচারিরা তাকে উদ্ধার করে কেন্দুয়া উপজেলা স্বা¯’্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জেসমিনকে মৃত বলে ঘোষনা করেন। খবর পেয়ে কেন্দুয়া থানা পুলিশের এসআই রুকনুজ্জামান ঘটনা¯’ল ও হাসপাতালে ছুটে যান। এসআই রুকন  জানান, ঘটনা¯’ল থেকে মোটরসাইকেল জব্দ এবং হাসপাতাল এলাকা থেকে জুনাইদকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার জেসমিনের বাবা কাজল মিয়া বাদী হয়ে জুবাইদের বিরুদ্ধে কেন্দুয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ জুবাইদকে নেত্রকোণা আদালতে পাঠিয়েছেন।